15000 টাকার মধ্যে ভালো গেমিং ফোন-২০২২ | best gaming phone under 15000

স্মার্টফোনে টুক টাক গেম খেলে না এমন ব্যক্তি পাওয়া যাবে না। একটা সময় ছিল যখন নকিয়া ফোনে স্নেক গেম খেলে সময় কাটাতে হতো।

টেকনোলজির উন্নয়নের সাথে সাথে মোবাইল ফোনের RAM, প্রসেসর এবং হার্ডওয়ারের অনেক উন্নতি হয়েছে।

আমরা অনেকেই ফ্রী ফায়ার এবং পাবজি গেম খেলার জন্য ভালো মোবাইল কিনতে চাই কিন্তু বুঝতে পারিনা কোন ফোনটি আমাদের জন্য ভালো হবে। ভিডিও এডিটিং এর জন্যও এই ফোনগুলো ভালো হবে। 

আবার অনেকেই আছে যাদের বাজেট স্বল্প এবং এই স্বল্প বাজেটের মধ্যে তারা একটা ভালো মানের গেমিং ফোন কিনতে চাই।

আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আমি আপনাদেরকে পনের হাজার টাকার মধ্যে বাংলাদেশে পাওয়া যায় এমন কিছু জনপ্রিয় গেমিং ফোন সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা দিব।

এখানে 15000 টাকার মধ্যে যে ফোন গুলোর কথা বলা হয়েছে, সেগুলো আমরা নিচের কতগুলো বিষয় এর উপর ভিত্তি করে নির্বাচন করেছি।

  • ডিসপ্লে সাইজ 6.5 ইঞ্চি।
  • সেন্সর: Gyroscope sensors
  • ডিসপ্লে রেজুলেশন ফুল এইচডি ।
  • RAM: মিনিমাম 4 GB ।
  • Storage:  মিনিমাম 64 GB ।
  • ব্যাটারি এম্পিয়ার মিনিমাম 5000 mAh এবং 18 ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার।


গেমিং ফোন নির্বাচনের ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো আপনারা প্রাধান্য দেবেন সেগুলো হলো, প্রথমেই দেখে নেবেন ফোনটির চিপসেট কোন ব্র্যান্ডের।

ভালো চিপসেট এবং RAM, ROM যদি যথেষ্ট পরিমাণে ভালো দেওয়া থাকে তাহলে অবশ্যই ফোনটা ভাল পারফর্ম করবে।

গেমিং ফোন কেনার সময় আরও যে বিষয়টা মাথায় রাখবেন সেটি হল ফোনের ব্যাটারি কত মিলি এম্পিয়ার দেওয়া আছে।

কারণ গেম খেলতে গেলে হাই রেজুলেশনের গ্রাফিক্স এর জন্য ফোনের উপর অতিরিক্ত প্রেসার পড়ে এবং এজন্য চার্জ একটু বেশি তাড়াতাড়ি শেষ হয়।

তাই গেমিং ফোন কেনার ক্ষেত্রে যে ফোনের ব্যাটারির এম্পিয়ার বেশি দেওয়া থাকবে এবং সাথে একটা ফাস্ট চার্জার দেওয়া থাকবে সেটাই ভালো হবে।

কারণ ব্যাটারী শেষ হয়ে গেলে আপনি দ্রুত আবার চার্জ করে নিতে পারবেন।

উল্লেখিত ক্রাইটেরিয়ার সাথে মিল রেখে বাংলাদেশে পাওয়া যায় 15000 টাকার মধ্যে ভালো গেমিং ফোন গুলো আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করছি।

তাহলে চলুন 15000 টাকার মধ্যে বাংলাদেশ অ্যাভেলেবল ভালো মানের গেমিং ফোন সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।


আপনাদের কাছে অনুরোধ রইল লেখাটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়বেন।


Realme Narzo 30A

প্রথম যে ফোনটি নিয়ে কথা বলবো সেটি হলো Realme Narzo 30A ফোনটি দেখতে খুবই সুন্দর করা হয়েছে। ফোনটিতে স্টাইল হিসেবে দেওয়া হয়েছে Minimal Notch ডিসপ্লে। 


যদিও ফোনটি এর বডি প্লাষ্টিক তবুও ফোনের সামনে দেওয়া হয়েছে গ্লাস প্রটেক্টর। ফোনটি বাংলাদেশের বাজারে Laser Black এবং Laser Blue দুইটি কালার এভেইলেবেল আছে। 


ফোনটিতে রয়েছে দুর্দান্ত 6000 মিলি এম্পিয়ারের non-removable ব্যাটারি। এছাড়াও ব্যাটারি চার্জিং এর জন্য দেওয়া হয়েছে 18W এর ফাস্ট চার্জার। 


অনেকের কাছে ফোনটা একটু পুরু মনে হতে পারে। ফোনটির ডাইমেনশন হচ্ছে 164.5 x 75.9 x 9.8 millimeters

এই ফোনটিতে আরো যে সকল ফিচার থাকছে

  • ফোনটির দাম: 12,990 4/64 GB
  • ব্যাটারি ক্যাপাসিটি: 6000 mAh
  • ডিসপ্লে সাইজ: 6.5 inches
  • ক্যামেরা ব্যাক: Dual 13+2 Megapixel
  • ক্যামেরা ফ্রন্ট: 8 Megapixel
  • চিপসেট: Mediatek Helio G85 (12 nm)
  • প্রসেসর: Octa core, up to 2.0 GHz
  • RAM: 4 GB
  • ROM: 64 GB


Infinix Note 8i

15,000 টাকা বাজেটের মধ্যে অন্যতম একটা সেরা গেমিং ফোন Infinix Note 8i ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে Gray, Blue এবং Green তিনটি কালারে

ফোনটির স্টাইলিশ এর কথা যদি বলা হয় তাহলে ফোনটিতে রয়েছে Punch-hole টাইপ ডিসপ্লে। যেটি দেখতে খুবই সুন্দর দেখায়।

ফোনটির বিল্ড মেটেরিয়াল হিসেবে প্লাস্টিক বডি এবং সামনে ব্যবহার করা হয়েছে গরিলা গ্লাস।

ফোনটির ডাইমেনশন দেওয়া হয়েছে 171.4 x 77.7 x 8.9 মিলিমিটার। এবং ফোনের ডিসপ্লের হাই রেজুলেশনের এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।

ফোনটিতে প্রোটেকশন হিসেবে কর্নিং গরিল্লা গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবহার করা হয়েছে লক বাটন এর সাথে সাইড মাউন্টেড।

ফোনটি খুব স্টাইলিশ এবং আকর্ষণীয় তৈরি করার পাশাপাশি ফোনটিতে গেমিং পারফরম্যান্স খুবই ভালো পাওয়া যায়।

ফোনটির দাম যদিও 15000 টাকা থেকে একটু বেশি তবুও এইটুকু বেশি দিয়ে ফোনটা কিনলে আশা করি আপনি ঠকবেন না।

ফোনটির উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য

  • ফোনটির দাম: 14,990
  • ব্যাটারি ক্যাপাসিটি: 5200 mAh
  • ডিসপ্লে সাইজ: 6.78 inches
  • ক্যামেরা ব্যাক: Quad 48+2+2+2 Megapixel
  • ক্যামেরা ফ্রন্ট: 8 Megapixel
  • চিপসেট: Mediatek Helio G80 (12 nm)
  • প্রসেসর: Octa core, up to 2.0 GHz
  • RAM: 6 GB
  • ROM: 128 GB

Xiaomi Poco M2

আমরা সবাই জানি যে Xiaomi ফোনের ব্র্যান্ড ভ্যালু অনেক ভালো। শাওমি মোবাইল ব্র্যান্ড মার্কেটে বেশ জনপ্রিয়তা সাথে রাজ করছে। শাওমি মোবাইল ব্র্যান্ড অনেক সফলতা লাভ করেছেন। ১৫০০০ টাকার মধ্যে ভালো মানের পাবজি খেলার অফিশিয়াল ফোন

শাওমি ফোনের যতগুলো ফোন আছে তার ভিতর Xiaomi Poco M2 ফোনটা ও বেশ জনপ্রিয় একটা ফোন। 

এই ফোনটা আমার কেটে দুইটি ভেরিয়েন্ট পাওয়া যাচ্ছে একটি হচ্ছে 6/64 GB অন্যটি হচ্ছে 6/128 GB

ফোনটি তিনটি কালার এভেইলেবেল Brick Red, Pitch Black, Slate Blue এবং ফোনের ডিসপ্লে স্টিল করা হয়েছে Minimal Notch।

ফোনটিতে গরিলা গ্লাস থ্রি প্রোটেকশন দেওয়া হয়েছে এবং ফোনের বিল্ট মেটেরিয়াল হিসেবে প্লাস্টিক বডি ব্যবহার করা হয়েছে।

ফোনটি লম্বায় 163.3 millimeters ফোনটির চওড়া 77 millimeters এবং ফোনটি পুরুত্ব মিলিমিটার 9.1 millimeters. ফোনটি দেখতে কিছুটা পুরু হতে পারে।

ফোনটি 18 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ক্যাপাবল কিন্তু ফোনটির সাথে 10 ওয়াটের একটি ফাস্ট চার্জার দেওয়া হয়েছে।

যদিও ফোনটির দাম 15000 থেকে একটু বেশি তবে ফোনটির ফিচার বিবেচনায় দামটা কিছুই না।

এই ফোনটিতে আরো যে সকল ফিচার থাকছে

  • ফোনটির দাম: 15,999 6/64 GB
  • ব্যাটারি ক্যাপাসিটি: 6000 mAh
  • ডিসপ্লে সাইজ: 6.53 inches
  • ক্যামেরা ব্যাক: Quad 13+8+5+2 Megapixel
  • ক্যামেরা ফ্রন্ট: 8 Megapixel
  • চিপসেট: Mediatek Helio G80 (12 nm)
  • প্রসেসর: Octa core, up to 2.0 GHz
  • RAM: 4 GB
  • ROM: 64 GB

Oppo A15s

Oppo যদিও সেলফি মোবাইল ফোন হিসেবে বেশি প্রচলিত। তবে আপনি Oppo A15s এই ফোনটি নিতে পারেন গেমিং পারফরম্যান্স খুবই ভাল পাবেন কারণ Oppo A15s প্রসেসর স্পিড খুব ভালো দেওয়া হয়েছে।

যারা 15000 টাকার আরো অনেক কমই একটি ভালো মানের মোবাইল ফোন করছেন তাদের জন্য এই ফোনটি ভালো হবে।

ফোনটি অনেক বাজেট ফ্রেন্ডলি এবং কম দামে বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে।

ফোনটি দুইটি কালারের বাংলাদেশ এডাইবেল রয়েছে Dynamic Black, Fancy White। ফোনটির স্টাইল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Minimal Notch টাইপ ডিসপ্লে।

ফোনটির ডাইমেনশন দেওয়া হয়েছে 164 x 75.4 x 7.9 millimeters

এই ফোনটিতে আরো যে সকল ফিচার থাকছে

  • ফোনটির দাম: 12,990
  • ব্যাটারি ক্যাপাসিটি: 5000mAh
  • ডিসপ্লে সাইজ: 6.5 inches
  • ক্যামেরা ব্যাক: Triple 13+2+2 Megapixel
  • ক্যামেরা ফ্রন্ট: 8 Megapixel
  • চিপসেট: Mediatek Helio P35 (12nm)
  • প্রসেসর: Octa core, up to 2.35 GHz
  • RAM: 4 GB
  • ROM: 64 GB


Realme Narzo 50i

ফোনটি 2021 সালের October বাংলাদেশ লঞ্চ হয়েছিল।  গেমারদের কাছে ফোন টিপ এর জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ফোনটি বাজেট ফ্রেন্ডলি হওয়ায় অনেকেই ফোনটি ক্রয় করেছে। 

ফোনটি দেখতে খুবই সুন্দর এবং চমৎকার করা হয়েছে। 

ফোনটির ডিসপ্লেতে হিসেবে দেওয়া হয়েছে Minimal Notch ফোনটির বিল্ট মেডিকেল হিসেবে প্লাস্টিক বডি এবং সামনের গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে।

ফোনটি বাংলাদেশের দুইটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে Carbon Black, Mint Green.

এছাড়াও ফোনটির সাথে একটি দশ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার দেওয়া হয়েছে।  

ফোনটির ডাইমেনশন 165.2 x 76.4 x 8.9 মিলিমিটার। এবং ফোনটির ওজন 195 গ্রাম।

আপনি যদি 15000 টাকায় একটি ভালো মানের গেমিং ফোন কিনতে চান তাহলে এই ফোনটি  আপনি দেখতে পারেন।

এই ফোনটিতে আরো যে সকল ফিচার থাকছে

  • ফোনটির দাম: 10,990 4/64 GB
  • ব্যাটারি ক্যাপাসিটি: 5000mAh
  • ডিসপ্লে সাইজ: 6.5 inches
  • ক্যামেরা ব্যাক: 8  Megapixel
  • ক্যামেরা ফ্রন্ট: 5 Megapixel
  • চিপসেট: MediaTek Helio G35 (12 nm)
  • প্রসেসর: Octa core, up to 1.6 GHz
  • RAM: 4 GB
  • ROM: 64 GB

বোনাস টিপসঃ

Tecno Camon 17P

Tecno Camon 17P গেমিংফোনটি এর জন্য খুবই ভালো একটা ফোন। ফোনটির বাজেট 15000 টাকার একটু বেশি হলেও ফোনটির পারফরম্যান্স খুবই ভালো। 

যারা ফোনের রাত্রি গেম খেলতে পছন্দ করেন তাদের জন্য ফোনটি বেস্ট হবে। ফোনটি দুইটি কালারে বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে Frost Sliver, Spruce Green

ফোনটির ডিসপ্লে স্টাইল হিসেবে দেওয়া হয়েছে Punch-hole.

ফোনটির বিল্ড মেটেরিয়াল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে প্লাস্টিক বডি এবং সামনে দেওয়া হয়েছে গ্লাস।

ফোনটির ডাইমেনশন 168.7 x 76.4 x 8.8 millimeters, অন্যান্য ফোনের থেকে এই ফোনটা কিছুটা পাতলা করা হয়েছে।

ফোনটিতে  18 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে।

ফোনটা ফিঙ্গারপ্রিন্ট পিছনে দেওয়া হয়েছে। ফোনটির অন্যান্য পারফরম্যান্সের সাথে সাথে এর ক্যামেরা টেকনোলজিও খুব উন্নত মানের দেওয়া হয়েছে।

এই ফোনটিতে আরো যে সকল ফিচার থাকছে

  • ফোনটির দাম: 18,990
  • ব্যাটারি ক্যাপাসিটি: 5000mAh
  • ডিসপ্লে সাইজ: 6.8 inches
  • ক্যামেরা ব্যাক: Quad 64+2+2 Megapixel + AI Lens
  • ক্যামেরা ফ্রন্ট: 16 Megapixel
  • চিপসেট: Mediatek Helio G85 (12 nm)
  • প্রসেসর: Octa-core, 2 GHz
  • RAM: 6 GB
  • ROM: 128 GB

 শেষ কথা
আশা করছি টিউটোরিয়ালটা পড়ে আপনি কিছুটা হলেও উপকৃত হয়েছেন, যদি আপনি টিউটোরিয়ালটি পড়ে উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে এটি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন যেন তারাও একটা ভালো মানের ফোন সিলেক্ট করে কিনতে পারে।

*

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post